লালনগীতি


এলাহী আলমীন (গো) আল্লা বাদশা আলামপানা তুমি
ডুবাইয়ে ভাসাইতে পার, ভাসায়ে কিনার দেও কারো
রাখো মারো হাত তোমারম তাইতে তোমায় ডাকি আমি।।
নুহু নামে এক নবীরে, ভাসালে অকুল পাথারে
আবার তারে মেহের করে, আপনি লাগাও কিনারে
জাহের আছে ত্রিসংসারে আমায় দয়া কর স্বামী।।
নিজাম নামে বাটপার সেত, পাপেতে ডুবিয়া রইত
তার মনে সুমতি দিলে, কুমতি তার গেল চলে
আউলিয়া নাম খাতায় লিখিলে, জানা গেল এই রহমি।।
নবী না মানে যারা, মোয়াহেদ কাফের তারা
সেই মোয়াহেদ দায়মাল হবে, বেহিসাব দোজখে যাবে
আবার তারা খালাস পাবে, লালন কয় মোর কি হয় জানি।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

রাসুলকে চিনলে পরে
খোদা চিনা যায়
রূপ ভাড়ায়ে দেশ বেড়ায়ে
চলে গেলেন সেই দয়াময়।।
জন্ম যাহার এই মানবে
ছায়া তার পড়ে ভূমে
দেখ দেখি ভাই বুদ্ধিমানে
কে এলো মদীনায়।।
মাঠে-ঘাটে রাসুলেরে
মেঘে রইত ছায়া ধরে
জানতে হয় তাই নিহাজ করে
জীবের কি সেই দারজা হয়।।
আহম্মদ নাম লিখিতে
মীম হরফ কই নফী করতে
সিরাজ সাঁই কয় লালন তাতে
কিঞ্চিৎ নজির দেখায়।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

ভুল না মন কারো ভোলে
রাছুলের দ্বীন সত্য মান
ডাক সদায় আল্লাহ বলে।।
খোদা প্রাপ্ত মূল সাধনা
রাছুল বিনে কেউ জানে না
জাহের বাতুন উপাসনা
রাছুল দ্বারা প্রকাশিলে।।
দেখাদেখি সাধিলে যোগ
বিপদ ঘটবে বাড়িবে রোগ
যেজন হয় শুদ্ধ সাধক
সেই রাছুলের ফারমানে চলে।।
অপরকে বুঝাইতে তামাম
করেন রাছুল জাহের কাম
বাতুন মশগুল মুদাম
কারো করো জানাইলে।।
যেরূপ মুর্শিদ সেইরূপ রাছুল
যে ভজে সে হবে মকবুল
সিরাজ সাঁই কয় লালন কি কূল
পাবি মুর্শিদ না ভজিলে।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

দিবানিশি থাকরে সব বা-হুঁশারী
রাছুল বলে এ দুনিয়া মিছে ঝাকমারী।।
পড়িলে আউজবিল্লা
দূরে যায় কি নানতুল্লা
মুর্শিদরূপ যে করে হিল্লা
শঙ্কা যায় তারই।।
অসৎ অভক্তজনা
গুপ্ত ভেদ তারে বল না
বলিলে সে মানিবে না
করবে অহংকারী।।
যাহার কথা সব ছফিনায়
গুপ্ত ভেদ সব দিলাম ছিনায়
এমনি মতন তোমার সবায়
দিও সবারই।।
খলিফা আউলিয়া রইলে
যে যা বোঝে দিও বলে
লালন বলে রাছুলের এই
নছিহত জারী।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

ভবে কে তাহারে চিনতে পারে
এসে মদীনায় তরীক জানায়
এ সংসারে।।
সবে বলে নবী নবী
নবী কি নিরঞ্জন ভাবি
দেল ঢুঁড়িলে জানতে পাবি
আহম্মদ নাম হল কারে।।
যার মর্ম সে যদি না কয়
কার সাধ্য কে জানিতে পায়
তাইতে আমার দীন দয়াময়
মানুষরূপে ঘোরে ফেরে।।
নফী এজবাত যে বোঝেনা
মিছেরে তার পড়াশুনা
লালন কয় ভেদ উপাসনা
না জেনে চটকে মারে।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

নবী না চিনলে সেকি খোদার ভেদ পায়
চিনিতে বলেছেন খোদে সেই দয়াময়।।
কোন নবী হইল ওফাত
কোন নবী বান্দার হায়াত
নিহাজ করে জানলে নেহাত
যাবে সংশয়।।
যে নবী পারের কান্ডার
জিন্দা সে চার যুগের উপর
হায়াতুল মুরছালিন নাম তার
সেই জন্য কয়।।
যে নবী আজ সঙ্গে তোরো
চিনে মন তার দাওন ধরো
লালন বলে পারের কারো
সাধ যদি রয়।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

পারে কে যাবি নবীর নৌকাতে আয়
রূপকষ্ঠের নৌকাখানি
নাই ডুবায় ভয়।।
বেহুঁশে নেয়ে যারা
তুফানে যাবে মারা
একই ধাক্কায়;
কি করবে বদর গাজী
থাকবে কোথায়।।
নবী না মানে যারা
মোয়াহেদ কাফের তারা
এই দুনিয়ায়;
ভজনে তার নাই মজুরী
দলিলে ছাপ দেখা যায়।।
যেহি মুর্শিদ নেই তো রাছুল
ইহাতে নেই কোন ভুল
খোদাও সে হয়;
লালন কয় না এমন কথা
কোরআনে কয়।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

পরবর্তী পৃষ্ঠা »