ছড়াগান


এসে হীরকদেশে
দেখে হীরের চমক,
এতো খাতির পেয়ে
দেখে রাজার ঝমক
মোদের মন ভরে গেছে খুশীতে…
মোরা সে কথা জানাই

রাজা এতোই রসিক
রাজা এতো দরাজ
রাজা এতো মিশুক
রাজার চিকন মেজাজ,
মোদের প্রান ভরে গেছে তাই…
মোরা সে কথা জানাই…….

বলো হীরক রাজার জয়,
বলো এমন রাজা ক’জন রাজা হয়
কতো দেশে দেশে, ঘুরে শেষে
মন বলে হীরকে এসে
‘এমন রাজা কোন দেশে নাই’
বলে ‘এমন রাজা কোন দেশে নাই’
মোরা সেই কথা জানাই
মোদের গানে, মোদের গানে সেই কথা জানাই…

বাংলাদেশের শিশু মোরা বাংলা ভালোবাসি
দেশের ডাকে মরতে পারি, দেশের ডাকে আসি।
সেই তো আমার বাংলাদেশ, আমাদেরই বাংলাদেশ।।
দেশটাকে ভাই গড়তে হলে করতে হবে আগে,
শিক্ষা শুধু জীবন গড়ে, শিক্ষাতে প্রাণ যাবে।
তাই তো রে ভাই সবাই মিলে পাঠশালাতে আসি।।
সত্য ন্যায়ের গড়তে জীবন শিক্ষাই হোক হাতিয়ার
ধন্য সেই জন এই ভুবনে শিক্ষা আছে যার।
সবার প্রাণে বাজবে এ গান যদি দেশকে ভালোবাসি।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

ছেলে ঘুমালো, পাড়া জুড়ালো
বর্গী এল দেশে
বুলবুলিতে ধান খেয়েছে
খাজনা দেব কিসে।।
ধান ফুরল, পান ফুরল
খাজনার উপায় কি?
আর ক’টা দিন সবুর কর
রসুন বুনেছি।।
ছেলে ঘুমিও না, পাড়া জুড়াবেনা
বর্গী আছে দেশে
ধানের গোলা শেষ হয়ে যাবে
খড় কুড়াবে শেষে
ওরা আজও ফন্দি আঁটে
সূর্য নেবে লুটেপুটে
আমরা সবাই ঘুমিয়ে গেলে
সূর্য নাববে কি সে।।

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

আজব দেশের ধন্য রাজা
    দেশ জোড়া তার নাম
বসলে বলেন হাটরে তোরা
    চললে বলেন থাম
    থাম থাম থাম।। (২)
রাজ্যে ছিল শাস্ত্রী সেপাই
    মন্ত্রী কয়েক জোড়া
হাতীশালে হাতী ছিল
    ঘোড়াশালে ঘোড়া।।
গাছের ডালে শুক সারীদের
    গল্প ছিল কতো
গল্পে তাদের রাজার কথা
    ফুটতো খইয়ের মতো।
এই না বলে স্বপ্নে রাজা
    দেখেন সোনার ঘোড়া
প্রজায় দেখে রাজার মুকুট
    কাগজ দিয়ে গড়া।।

[গানটির কথা লিখেছেন শামসুর রাহমান এবং সুর করেছেন এ.এফ.এম. আলিমউজ্জামান]

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

জানালার কোল ঘেষে
     বসি একেলা
খুকুমনি বউ সেজে
     খেলছে খেলা।। (২)
ডলি মিনি কত যে পুতুল
সুন্দর গা খানি করে তুলতুল
লাল নীল জামা জুতো
     রয়েছে মেলা।।
বিয়ে হবে পুতুল সোনার
আসবে কুটুম কতো সীমা নেই তার
রান্না বাড়ার তাই যে আজ
     কত ঝামেলা।।

[গানটির কথা লিখেছেন আবদুল হাই আল-হাদী এবং সুর করেছেন এ.এফ.এম. আলিমউজ্জামান]

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

ঘুম পাড়ানী ঘুমের পরী
    আয়রে আয় আয়রে আয়
সোনামনির দুটি চোখে
    ঘুমের পরশ দিয়ে যা।।
ফুলের দেশে যাবে সে
স্বপ্ন মধুর আবেশে
পাখনা মেলে উড়ে উড়ে
      বহু দূরে নিয়ে যা।।
আয়রে পরী আয়না রে
ধরছে খুকু বায়না যে
ছন্দ তুলে দুলে দুলে
      ফুলে ফুলে নিয়ে যা।।

[গানটির কথা লিখেছেন আবদুল হাই আল-হাদী এবং সুর করেছেন এ.এফ.এম.আলিমউজ্জামান]

{গানটি পড়া না গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

টুকটুকে লাল রাঙা পুতুল বউ সেজেছে আজ
বিয়ে বাড়ী ব্যস্ত সবাই নিয়ে নানান কাজ।।
কাঠ বেড়ালী বরের মাসী বসেছে মাঝখানে
তাক্‌ ধিনা ধিন ছড়া কেটে আসর জমায় গানে
তানপুরাতে তান ধরেছে ইঁদুর মহারাজ।।
পাড়া পড়শী এলো কতো ময়না টিয়ার দল
ভোজন শেষে সবাই তারা করছে কোলাহল
ছেলে মেয়ে হল্লা করে পরে নতুন সাজ।।

[গানটি লিখেছেন আবদুল হাই আল-হাদী এবং সুর করেছেন এ.এফ.এম. আলিমউজ্জামান]

{গানটি পড়া না গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

কানা বগী বড় হলো আজকে যে তার বিয়ে
বর সেজে তাই বোয়াল এলো ভাঙ্গা নৌকা নিয়ে।।
বাঘ সিংহ এলো সবে এলো মহিষ ষাঁড়
সবাই মিলে দিলো কতো দামী উপহার
সবার শেষে ফিরণী খেলো ঘোড়ার ডিম দিয়ে।।
কানা বগী চললো এবার মজার শ্বশুর বাড়ী
শ্বশুর এসে দিল খেতে মিষ্টি যে সাত হাড়ি
সবুজ বরণ টিয়ে এলো টোপর মাথায় দিয়ে।।

[গানটির কথা ও সুর করেছেন এ.এফ.এম.আলিমউজ্জামান]

{গানটি না পড়া গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

আমরা কচি আমরা কাঁচা সবুজ কণার দল
সবাই মিলে গড়বো এ দেশ মনে আছে বল।।
দেশের সেবা করবো মোরা রাখবো দেশের মান
সোনা রঙে রাঙবো মোরা হয়ে কোটি প্রাণ
সোনার দেশের আমরা শিশু করি কোলাহল।।
সবার সাথে ঘুরবো মোরা সারা দেশময়
লেখাপড়া শিখবো ভালো করবো দিগ্বীজয়
গড়বো সবাই সোনার এদেশ হয়ে একদল।।

[গানটির কথা ও সুর দিয়েছেন এ.এফ.এম.আলিমউজ্জামান]

{গানটি পড়া না গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

নানু দাদু হচ্ছে শিশু
     শিশু পার্কে যেয়ে
নাগর দোলায় দুলছে তারা
     ইগলু মিমি খেয়ে
     আহা কি মজা, কি মজা।।
খোকা খুকুর দলে চেয়ে থাকে
নানু দাদু তাদের দুলতে ডাকে
সবাই দোলে এবার মজা করে
     দাদুর কোলে যেয়ে।।
দুলতে দুলতে নানু মজা করে
বাদাম ভাজা খায় পেটটি ভরে
তাইনা দেখে দাদু রেগে থাকে
ফোকলা দাঁতে চেয়ে।।

[গানটি লিখেছেন ও সুর করেছেন এ.এফ.এম. আলিমউজ্জামান]

{গানটি পড়া না গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

চানাচুর আছে আমার এই ঝোলাতে
খোকা খুকু জলদি এসো কিনে নিতে
    হেই চানাচুর আরে গারমা গারাম।।
আমার চানাচুর যে ভাই ভারি মজা খেতে
টক ঝাল লবণ আর লেবু মেশানো থাকে এতে
বাদাম ছোলা ডালমুট আছে আরো কতো
    ঝোলা খালি হলে সবাই বলে আনতে।।
ফেরী করে চানাচুর বেচা ঝামেলা
তবুও মন থেকে থেকে হয় উতলা।
চানাচুর খেয়ে সবার মুখে ফোটে হাসি
খোকা খুকু ডাকলে আবার অমনি ছুটে আসি
একেক প্যাকেট চানাচুর চার আনাতে দেবো
    খেতে খেতে চলে যেও আবার এসো নিতে।।

[গানটি লিখেছেন ও সুর করেছেন এ.এফ.এম.আলিমউজ্জামান]

{গানটি পড়া না গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

ঝিক ঝিক ঝিক ঝিক ঝিক ঝিক ঝিক ঝিক
                           চলে রেল গাড়ী
এতে চড়ে আমি এবার পৌঁছে যাব বাড়ি।।
রেল গাড়ী রেল গাড়ী চলে এঁকে বেঁকে
বাঁশী বাজায় জোরে জোরে একটু থেকে থেকে
নিয়ে যাবে সঙ্গে করে মিষ্টি যে সাত হাড়ি।।
সবাই মিলে মজা করে মামার বাড়ি যাবো
সেথায় গিয়ে চানাচুর আর টক ঝাল আচার খাবো
রাগারাগি করলে সবাই নিয়ে নেবো আঁড়ি।।

[গানটির কথা ও সুর করেছেন এ.এফ.এম.আলিমউজ্জামান]

{গানটি পড়া না গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}

আমি যে ভাই যাদুওয়ালা দেখাই যাদু
বাড়ি আমার চাঁদের দেশে হা-হা,
               আমি চাঁদেরি দাদু।।
ঝোলার ভিতর আছে আমার হরেক রকম ম্যাজিক
খোকা খুকু দেখো দেখো ব্যাঙ হবে শালিক
আম পাতা কই মাছ হয়ে যাবে ভাই
হাতের মাটি হয়ে যাবে ফু দিলে লাড্ডু।।
আমার যাদু বেচি আমি দেশে দেশে ঘুরে
ঝোলা খালি হলে যাবো চাঁদের দেশে উড়ে।
যাদু দিয়ে বানাই আমি পুতুল থেকে মানুষ
রুমাল গেলো ঝোলার ভিতর বেরিয়ে এলো ফানুস
হাতী ঘোড়া বাঘ ভাল্লুক যাদু দিয়ে বানাই
কিনবে নাকি জলদি এসো দু’আনা নেবো শুধু।।

[গানটির কথা ও সুর করেছেন এ.এফ.এম. আলিমউজ্জামান]

{গানটি পড়া না গেলে বিকল্প লিংক}
{If you can’t read it, click here}